ইনফিনিক্স হট 30 প্রাইস ইন বাংলাদেশ Infinix Hot 30 Price In Bangladesh

আজকে আমরা ইনফিনিক্স হট 30 প্রাইস ইন বাংলাদেশ এটি নিয়ে বিশ্লেষণ করব। ইনফিনিক্স হট 30 দাম কত এর ফিচারস কি কি এসব নিয়ে আজকে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করবো। আপনারা দেখছেন আজকে ইনফিনিক্স হট 4 জি স্মার্টফোন তার একটা ওভারভিউ।

ইনফিনিক্স হট 30 প্রাইস ইন বাংলাদেশ Infinix Hot 30 Price In Bangladesh

চলুন প্রথমেই জেনে নেই ইনফিনিক্স হট 30 প্রাইস ইন বাংলাদেশ বর্তমান বাংলাদেশ ইনফিনিক্স হট 30 প্রাইস 8/128GB = ১৭,৪৯৯ টাকা এবং 4/128 GB দাম = ১৩,৯৯৯ টাকা।

চলুন ইনফিনিক্স হট 30 একটা ওভারভিউ দেখে নেই

ইনফিনিক্স হট 30 প্রাইস ইন বাংলাদেশ Infinix Hot 30 Price In Bangladesh
Infinix Hot 30
ইনফিনিক্স হট 30 প্রাইস ইন বাংলাদেশ Infinix Hot 30 Price In Bangladesh
Infinix Hot 30
ইনফিনিক্স হট 30 প্রাইস ইন বাংলাদেশ Infinix Hot 30 Price In Bangladesh
Infinix Hot 30
ইনফিনিক্স হট 30 প্রাইস ইন বাংলাদেশ Infinix Hot 30 Price In Bangladesh
Infinix Hot 30

এই ডিভাইসটির 5.7 ইঞ্চি ডিসপ্লে মিডিয়াটেক প্রসেসর। ক্যামেরা এন্ড 5000 এমএস ব্যাটারি এন্ড 33 ওয়াটার ইনবক্স 4g কমপ্লিট প্যাকেজ মাত্র 15000 টাকায় পাওয়া যাচ্ছে এই জিনিসটা কিন্তু আমার কাছে অনেক প্রত্যাশা।

ডিটেইলস এ যাওয়া যাক প্রথমে শুরু করা যাক এর ডিজাইন দিয়ে কারণ এইটাই তো মানুষের মন জয় করার প্রধান এবং প্রথম হাতিয়ার এর ডিজাইন টা দেখি আমি চেষ্টা করছিলাম শুরুতে এমন ডিজাইন ত 15000 টাকার মধ্যে একটু সারপ্রাইজ হয়েছি সত্যি বলতে আমাদের হাতের কালারটি ছিল সনি কুয়াইট জাকিয়া বাড়াও তাহলে একটু কালার করে গোল্ডেন একটা বাদে আর দুইটা কালার আছে সার্ফিং গ্রীন অ্যাড্রেসিং ব্ল্যাক।

ডিজাইনের বাকি জিনিসের দিকে তাকালে দেখতে পাই যে প্লাস্টিকের তৈরি বক্স ইস এ পেরফেক্ট 196 গ্রামের দিকে একটু বেশিই হাতে নিলে ভালো হবে ওজনের পাওয়া যায় বেশি আছে ফোনের পড়ছেন বাটন সব ঠিকঠাক মত আছে ডান পাশের পাওয়ার বাটন ত ইম্প্লেমেন্ট করা আছে যেটা বেস্ট ফাস্ট ট্র্যাক রেট ছিল বামপাশের দিকটাতে আছে ফুল সিম ট্রে যেটার মধ্যে মেমোরি এক্সপেন্ড করার সুযোগ আছে এই প্রাইস রেঞ্জ এর পরে তাদের জন্য এটা কিন্তু একটা ফিচার ফোনের ব্যাকপাট টা কিন্তু ব্লক।

এটা কিন্তু আবার একটু কালার চেঞ্জ করলেন চেঞ্জিং ব্যাপার স্যাপার আছে আলোতে যদি আপনি নেন সুন্দরী লাগে আমার কাছে অনেক ফিঙ্গারপ্রিন্ট পরে ভাই একটু পরপর হচ্ছে ফিঙ্গার প্রিন্স মাছ পর্যায়ের কারণে আপনি 23 মিনিট পর পর আপনার উচিত এই ভাবেই মুছতে হবে ক্লিন রাখতে হবে।

আর যদি ব্যাক্তিটির কথা বলি ক্যামেরা হাউসিং গুলা বিশাল বড় বড় ভাই আছে না পাঞ্জাবি শার্ট বাটন ক্যামেরা লেন্স দিয়ে রাখছে আউটার রিং টা একটু বেশি বড় দিয়ে রাখছে এইটা আমার কাছে একটু ছোট হলে মনে হয় বেটার হইতো বা ডিজাইন যার যার ব্যাপার এন্ড ক্যামেরা জীবনের মতো এই জিনিসটা কিন্তু অন্যদের তুলনায় আলাদা লাগতেছে আর পাশাপাশি এটা কিন্তু রাউন্ড বাটন।

ঢাকা একটা ম্যান্ডেটরি বিষয় কিন্তু এখানে আইপিএস ডিসপ্লে টাকার পরিমাণটা একটু বেশি বড় হয়ে গেছে আরেকটা ভালো আছে এই যে পাথরটা তার চারদিকে সাধুর মতন দেখা যায় এটা কি বিরক্তিকর লাগে যদিও সবাই খেয়াল করবেন না তবে ডিসপ্লের প্রধান কাজ হচ্ছে কোন টেনশন করা আর এতে এক্সপেরিয়েন্স টা ভালই ছিল কোন প্যারা খাইতে হয় নাই।

এর বটম ফারিন লাউড স্পিকার টা ডিসেন্ট লাউড ডিসপ্লের ব্রাইটনেস 619 লাইটিং একদম ডিরেকশন লাইটের নিচে গেলে একটু দেখাবেন মোটামুটি ঠিকঠাক আছে ডিসপ্লে আরিফ রেস্ট নিয়ে কোন প্যারা খাইতে হয় নাই বাট পিয়ারা খাইছি হচ্ছে টাচ রেসপন্স নিয়ে একটু লেগে ছিলো একটু রেসপন্সে ছিল আমাদের কাছে তুলনামূলক ভাবে আমাদের ফোন চালাতে জানি লাগে বাট অন্য ফোনগুলোর তুলনায় এটা টাচ টা একটু কম রেস্পন্সিভ লাগছে এই ব্যাপারটা আমি একটুও খুশি আপনাদের জানিয়ে রাখলাম যদি পারফরম্যান্সের কথা বলি এই ধরনের ফোনগুলো যারা ব্যাবহার করেন তারা সারাদিনই মোটামুটি ফোনের উপরে থাকেন।

আরও পড়ুনঃ Oppo A33 দাম কত |Oppo A33 বাংলাদেশ প্রাইস 2024

মাল্টিটাস্কিং চলে হোয়াটসঅ্যাপ ইউজ করলে প্রচুর ফেসবুক ইউজ করে প্রচুর ফোনে কল দেয়া হয় এন্ড ক্রোম ইন্টারনেট ব্রাউজিং এগুলোতো কন্টিংয়েন্সি চলতে থাকে এই ফোনটাই মিডিয়াটেক হেলিও g35 এইটা মোটামুটি যথেষ্ট বাণিজ্যে লিভার করতে পারে day-to-day লাইফের যতখানি দরকার আপনি ইরেগুলারিতিজ বলেন মাল্টিটাস্কিং বলেন খুব একটা হ্যাঁ আগে দেখা পাবেন না এটাতে আমাদের হাতে যেটা ছিল এটা হচ্ছে 4 128 জিবি ভেরিয়েন্ট 4gb এক্সপেন্ডেবল সফটওয়্যার ডেমো আছে।

আপনি প্রচুর স্ট্রেস না দিলে কিন্তু আপনার নিত্যদিনের কাজ এর ব্যাকআপ দিয়ে দিতে পারবে ইনফিনিক্স হট চাটি ফোনটা দেন গেমিং আমি ভাবতেছিলাম যে 2000 টাকার গেমিং কি বলব না কি বলব না বার্থডে অনেকে কিন্তু 15000 টাকার ফোনে অনেক গেমিং করেন আমরা এটার মধ্যে পাবজি এন্ড হচ্ছে ফ্রী ফায়ার টেস্ট করে দেখেছি মোটামুটি ভালই চলতেছিল যতখানি অনুযায়ী আমাদের কাছে না মিডিয়াটেক ইন্দ্রজিৎ সব সময় লাগে যে একটা ডেট টুডে লাইভ নিউজ এর জন্য একটা রিলেশনশীপ সেটাও তো বেশি দরকার ইনফিনিক্স দাবি করেছে এটা কিঞ্চিৎ।

বেশি পাওয়ারফুল সেটা হচ্ছে এই বাজে ট্রেন যাচ্ছে না রাখা উচিত হবে বলে আমার মনে হয় না যে একদম ত ক্লোজ গেমিং করে ফেলবেন এটা স্বাভাবিক এটা সবার কাছে আসার কথা 15 হাজার টাকায় 15 মিনিট পর কথা না যতখানি মন চায় ভালো থাকতে পারে ততখানি জিটিএ ডেলিভার করার মতন পটেনশিয়াল আসবে কখন আমার ব্যাটারি ব্যাকআপ নিয়ে রাখতে হয় না এটা 5000mh ব্যাটারি আছে।

এর থেকে 2 দিন চলে যাবে আমরা টেস্ট করে দেখেছি ইনবক্সে z1044 যেটা ভাবে সেটা দিয়ে এক ঘণ্টা 15 থেকে 20 মিনিটের মধ্যে এটা চার্জ হয়ে যায় সর্বোচ্চ 1 ঘন্টায় 3 ব্যাটারি ব্যাকআপ শুনে আমি খুশি এন্ড এ বাজেটের মধ্যেই হচ্ছে কিন্তু ব্যাটারি ব্যাকআপ ভালো দেয় দেন সফটওয়্যার সেকশনে আমরা ভাবছি ইনফিনিক্স x4 স্ক্রীন অন টপ অফ অ্যান্ড্রয়েড ফোনে স্ক্রিনটা না একটু এদিকে।

বেশকিছু অ্যান্ড অ্যান্ড লোটারি আছে যারা মিনিমালিস্টিক পছন্দ করেন তাদের খুব একটা মন কাটতে পারবেন আমার মনে হয় এটি মানুষের কাছে না এই হেভি সফটওয়্যার গুলা ইদানিং ভালো লাগেনা খুব স্বাভাবিক ব্যাপার অনেকে অভিযোগ করেন যে সব সফটওয়ারগুলো প্রপার ব্যাকআপ দিতে পারেনা পারফরম্যান্স একটা ড্রেনে ফেলে আমি এই জিনিসটা এক্সপেরিয়েন্স করছি এন্ড ইনফিনিক্স s3x স্টাইলটা অনেক খানি হেভি হয়ে গেছে ইনফিনিক্স এর উচিত মানুষের ফিডব্যাকের দিকে আরো বেশি নজর লাইট করা।

আরও পড়ুনঃ রেডমি ১০ দাম কত 2024 | Redmi 10 Price in Bangladesh

ওদের ফোনগুলো কিন্তু জোস হয় বা সফটওয়্যার টা একটু বেটার ফিডব্যাক দিলে কিন্তু যতটা কম্বিনেশন হইত হার্ডওয়ার সেকশনের লাস্ট পার্টটা সেটা হচ্ছে ক্যামেরাটা ফিফটি মেগাপিক্সেলের একটা প্রাইমারি সেন্সর ব্যবহার করছেন এটা সেকেন্ডারি ক্যামেরা ছবিগুলো বেশি বেশি পোস্ট করে বসে মোটকথা সোশ্যাল মিডিয়ার এডি ছবি আর কি এই রেঞ্জের যারা ফোন ইউজার তাদের কাছে ভালোই লাগবে আর ছবি ডিটেইলস দাম অনুযায়ী ওকে একটা কমপ্লেইন করার মত ছবি।

রাতের বেলায় ছবিগুলো একটু ভালো হাতে তুলতে হবে ছবিতে নয় যেন দেখা যায় তার ছবিগুলো বেশি আছে এটা অনেক লংটাইম ধরে তুলতে হয় এন্ড শক্ত হাতে ধরে তুলতে হয় দিনে যাওয়ার মত কানার প্রোফাইলটা এভারেজ লাগছে আমার কাছে ডিটেইলস কম একটু স্মুথ করে ফেলে পার্সেন্ট কাজ চালাতে পারবেন।

আর কি বাট একটা এগ্রেসিভ ব্লারিং দেখা যায় এই এই মিয়া 20 হাজার টাকার নিচে ফোনগুলোতে আমি এগুলো বেশি দেখি ব্যাকগ্রাউন্ড একটু বেশি বের করে ফেলে মানুষও পছন্দ করে আমার কাছে যদিও খুব একটা পছন্দ না বাট মানুষটাকে পছন্দ করে ভিডিও সেকশনে গেলে দেখা যায় ফ্রন্ট এন্ড ব্যাক দুইটা ক্যামেরা দিয়ে সর্বোচ্চ টু গোহাটি এক্সপ্রেস রুট করতে পারবেন নরমালিটি পর্যন্ত হয় ওরা 440p পর্যন্ত যদিও ভিডিও কোয়ালিটি খুব একটা ভালো না।

স্টেবিলাইজার নাই যেহেতু 15000 টাকায় আপনি যে ক্যামেরা চান এটা সোজাসুজি তাই এটা হচ্ছে আমার মন্তব্যটা প্রবাল ক্যামেরাটা নিয়ে পরবর্তী সময়ের দাম বাড়ছে এন্ড প্রচুর পরিমাণে ভার্সেস পিকটাই হয়তোবা কর্নার আগে আরো কম দামে পাওয়া যেতো বা করার সময় তো কম দামে পাওয়া যেত কিন্তু এখন তো পুরা চেঞ্জ হয়ে গেছে নতুন বাজারের অবস্থা মিলিয়ে কাজ করতে হবে আমি যদি ইনফিনিক্স হট পার্টিকে একনজরে আবার যদি রিভিউ করি তাহলে এটার মধ্যে আপনি পাচ্ছেন একটা ডিসেন্ট পারফরম্যান্স পাচ্ছেন।

এটা আমি গ্যারান্টি দিচ্ছি ডিসপ্লেটা ওয়াচিং এক্সপেরিয়েন্স ভালো মাদ্রাজি রেস্পন্সিভেনেস রাস্তায় চলে গেলে আমি ক্যামেরার ব্যাটারি ব্যাকআপ খুবই ভালো পাই স্পেশাল করে বানানো হয় তেমন কিন্তু না এগুলো হচ্ছে এটা কমপ্লিট প্যাকেজ দেয়ার চেষ্টা করা সেটা কিন্তু ইনফিনিক্স হট নয় আমার কাছে মনে হয় ইন্সপেক্টর করে আপনার হচ্ছে যাচাই করে দেখতে পারেন ইনফিনিক্স হট 15000 টাকা আমার মতে খুবই ভালো একটা চয়েজ।

আরও পড়ুনঃ রেডমি এ ওয়ান প্লাস প্রাইস ইন বাংলাদেশ Redmi A1+ price in Bangladesh

শেষ কথা

আশা করি ইনফিনিক্স হট 30 প্রাইস ইন বাংলাদেশ কত ফিচারস কি কি এসব জানতে পেরেছেন। আপনাদের ইচ্ছা আর আজকে আমি ইনফিনিক্স হট থার্টি সাথে এখানেই বিদায় নিচ্ছি ভালো থাকবেন সবাই আসসালামুয়ালিকুম।

Leave a Comment